চীনের ভিত নাড়ানো সহজ নয়: শি জিনপিং

A+ A- No icon

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, কোনও শক্তি এই মহান জাতির ভিত নাড়াতে পারবে না। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ৭০ বছর শাসনামলের পূর্তি উপলক্ষে দেয়া এক ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। শি বলেন, কোনও শক্তি চীনের মানুষ ও চীনের জনগণের অগ্রযাত্রা রুখতে পারবে না। তবে নিজের ভাষণে নির্দিষ্ট কোনও দেশের কথা উল্লেখ করেননি চীনা প্রেসিডেন্ট এবং জোরারোপ করে বলেন, চীন শান্তি ও উন্নয়নের পথে হাঁটবে। ১০ মিনিটের কম স্থায়ী ওই ভাষণ ‘মহান কমিউনিস্ট পার্টি অব চীন চিরজীবী হোক। এবং মহান চীনের মানুষ দীর্ঘজীবী হোক’ স্লোগান দিয়ে শেষ করেন প্রেসিডেন্ট শি। এরপর চীনা সেনাবাহিনী প্রেসিডেন্ট শি’র সামনে কুচকাওয়াজ করে। প্রায় ১৫ হাজার সেনা কর্মকর্তা ওই কুচকাওয়াজে অংশ নেন। ১৬০ বিমান এবং ড্রোন ও মিসাইলসহ ৫৮০টি সামরিক সরঞ্জাম দিয়ে এই সামরিক মহড়ার আয়োজন করা হয়।


সামরিক মহড়ার যন্ত্রপাতি অংশ শেষ হয় পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম মিসাইল ডংফেং ৪১ প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে। বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস জানিয়েছে, এই মিসাইলটি যুক্তরাষ্ট্রে ৩০ মিনিটের মধ্যে আঘাত হানতে সক্ষম। জাতীয় দিবস উদযাপনে রাজধানী বেইজিংয়ে একটি গালা-রও আয়োজন করা হয়েছে। এদিকে কমিউনিস্ট পার্টির শাসনের ৭০তম বার্ষিকী উদযাপনে বেইজিং পৌঁছেছেন হংকংয়ের নেতা ক্যারি লাম। চীনের বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হংকংয়ে টানা ১৮ সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভের মধ্যেই বেইজিং আসলেন ক্যারি লাম।


নিজের বক্তব্যে শি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার ‘হংকং ও ম্যাকাউয়ে দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়ন ও স্থিতিশীলতা বজায়’ রাখবে। তিনি বলেন, সামনে এগিয়ে যেতে আমাদেরকে শান্তিপূর্ণ পুনরেকত্রীকরণের কৌশল এবং ‘এক দেশ, দুই নীতি’র প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকতে হবে। উল্লেখ্য, মাও সেতুংয়ের পর শি জিনপিংকে চীনের সবচেয়ে শক্তিশালী নেতা মনে করা হয়। ২০১২ সালে তিনি চীনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন এবং প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় থাকার যে সময়সীমা রয়েছে, তা গত বছর বিলুপ্ত করেন।

Comment As:

Comment (0)