ঘুম থেকে উঠেই দেখি জিনিসপত্রের দাম বাড়ে কি না

A+ A- No icon

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠেই সবার আগে দেখি জিনিসপত্রের দাম বাড়ল কি না। এটা রাতের দুঃস্বপ্নের মতো। প্রতিদিন খোঁজখবর নেই কী বাড়ে, কী না বাড়ে।’ সচিবালয়ে বিদায়ী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দেখতে চাচ্ছি দামটা কমে আসে কি না। তবে আমরা আশাবাদী, কমে আসবে। দাম না কমলে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে।’ টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, খুচরা বাজারে আজ প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। আর ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকায়। টিসিবির এক মাস আগের তুলনায় দেশি পেঁয়াজের দাম ৭৩ এবং আমদানি করা পেঁয়াজের দাম ২৩ শতাংশ বেড়েছে। টিসিবি বলেছে, ভারতীয় পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১ টাকা কমেছে। 

বাণিজ্যমন্ত্রী পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির জন্য কয়েকটি কারণকে দায়ী করেন। এগুলো হচ্ছে ভারত থেকে আমদানি কিছুটা কমে যাওয়া, বৃষ্টি এবং অসাধু ব্যবসায়ী। মন্ত্রী জানান, ‘যে দুটি পয়েন্ট (বন্দর) দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আসে, প্রতিদিন যেভাবে আসত, তার থেকে কম আসছে এখন। পেঁয়াজ রপ্তানিতে ভারত যে ১০ শতাংশ প্রণোদনা দিত, সেটা নাকি তারা প্রত্যাহার করেছে। আর দুষ্ট ব্যবসায়ীরা তো সব সময় সুযোগ খোঁজে। টিসিবির সঙ্গে কথা বলেছি। বাজার তদারক করব, প্রয়োজনে টিসিবির মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রির ব্যবস্থা করব।’

 

Comment As:

Comment (0)