প্রস্তাবিত বাজেট বিনিয়োগ সহায়ক নয়

A+ A- No icon

প্রস্তাবিত বাজেট বিনিয়োগ সহায়ক নয়, বিশেষ করে বিদেশী বিনিয়োগকারীরা ঘোষিত বাজেটের প্রভাবে বিনিয়োগে নিরুৎসাহিত হবেন। এমন মত প্রকাশ করার পাশাপাশি বাজেটে প্রস্তাবিত রাজস্ব আহরণে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) পুনর্গঠনের তাগিদ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। গতকাল রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স (অ্যামচেম) আয়োজিত এক সভায় এসব কথা বলেন তারা।

 

সভায় অতিথি আলোচক ছিলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম, গবেষণা সংস্থা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক আহসান এইচ মনসুর ও ফরেন ইনভেস্টরস চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফআইসিসিআই) সভাপতি শেহজাদ মুনিম। সভাটি সঞ্চালনা করেন অ্যামচেমের সভাপতি নুরুল ইসলাম।

 

সভায় বক্তারা রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য পূরণে রাজস্ব খাতে বড় ধরনের সংস্কারের পরামর্শ দিয়েছেন। তারা বলেন, সময় এসেছে রাজস্বনীতি গ্রহণ ও রাজস্ব আহরণ এ দুটি কাজ পৃথক দুটি সংস্থার মাধ্যমে করার। বক্তারা বেসরকারি ও বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধিকে অর্থনীতির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ বলে অভিহিত করেন। এছাড়া বাজেটে টেলিযোগাযোগ খাতে শুল্ক ও কর বৃদ্ধি, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির রিটেইন আর্নিংস বা রিজার্ভের ওপর করারোপ, ব্যাংক খাত থেকে সরকারের ঋণগ্রহণের প্রবণতা বৃদ্ধি, প্রভাব মূল্যায়ন ছাড়া বিভিন্ন খাতে করারোপের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন বক্তারা।

 

ড. আহসান এইচ মনসুর বলেন, এনবিআর নিজেরাই নীতি প্রণয়ন করছে আবার নিজেরাই রাজস্ব আহরণের কাজ করছে। ফলে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য পূরণে তারা সহজ পথ বেছে নিচ্ছে। এতে বিদ্যমান করদাতার ওপর করের বোঝা বাড়ছে।

 

রাজস্ব লক্ষ্য অর্জনের বিষয়ে আলোকপাত করতে গিয়ে ড. এবি  মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, এনবিআরকে পুনর্গঠন করা প্রয়োজন। এর মাধ্যমে সংস্থাটির সক্ষমতা বাড়ানো সম্ভব হবে বলে আশা করছি। বিদেশী বিনিয়োগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন কাজের অভিজ্ঞতায় দেখেছি বিদেশী বিনিয়োগকারীরা স্থানীয় বিনিয়োগকারীদের অনুসরণ করেন। স্থানীয় বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ মানসিকতার বিচার করে বিদেশীরা বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেন।

 

এফআইসিসিআই সভাপতি শেহজাদ মুনিম বলেন, প্রতি বছরই আমরা দেখছি বাজেটের আকার বড় হচ্ছে। বড় হচ্ছে রাজস্ব লক্ষ্যও। আর এ লক্ষ্য পূরণে গুরুত্ব পাবেন বৃহৎ করদাতারা। ব্যবসায়ী সমাজে আমার সহকর্মীদের কেউ বলছেন না যে তাদের ব্যবসা ৩০ বা ৪০ শতাংশ বাড়বে পাবে। আমাদের ব্যবসা যদি ৩০ বা ৪০ শতাংশ না বাড়ে, তাহলে রাজস্ব কীভাবে দেব? শুরু থেকেই তাই রাজস্ব লক্ষ্য অর্জন অসম্ভব মনে করছি।

Comment As:

Comment (0)