৩০ বছর ধরে কাঁচা সবজি খান বামাপদ

A+ A- No icon

ভারতের গড়াই কাটোয়ার বাসিন্দা বামাপদ। বয়স ৫৫ ছুঁয়েছে। অদ্ভুত স্বভাবের জন্য গোটা শহরের লোকই এক ডাকে চেনে বামাপদকে। তাঁর খাদ্য তালিকার প্রথমেই রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সবজি। সবই কাঁচা। তার ব্রেকফ্রাস্ট থেকে ডিনার সবই চলে হরেক রকম কাঁচা সবজি দিয়ে। পেশায় সবজি বিক্রেতা বামাপদ সকালের দিকে আলুটাই বেশি খান। দু’তিনটে আলুতেই ব্রেকফাস্ট হয়ে যায়। বেলা বাড়লে অল্প কিছুটা কুমড়ো বা লাউ খেয়ে নেন। দুপুরের আগে বাঁধাকপি খান বেশ কিছুটা। তারপর যখন যা হাতের কাছে যা পান তাই খেয়ে নেন। সন্ধ্যার দিকে খুব বেশি খান না। লাউ, কুমড়া, কপি অল্প করে খেয়ে নেন। সব মিলিয়ে সারাদিনে নয় থেকে দশ কেজি কাঁচা সবজি খাওয়া হয়ে যায় বলে জানিয়েছেন বামাপদ।


বামাপদর খাওয়া নিয়ে ভাবতে হয় না স্ত্রী শেফালিকে। তিনি বলেছেন, রান্না করা খাবারের দিকে একেবারে ঝোঁক নেই তার স্বামীর। কাঁচা লাউ বা কাঁচা কুমড়াই বেশি প্রিয় বামাপদর। ফলে নিশ্চিন্ত থাকেন শেফালি গড়াই। তিনি আরও বলেছেন, রান্না করে দিলে খায় বটে, তবে রান্না করা সবজি ততো ভালোবাসে না। সারাদিন কাঁচা কাঁচাই সব খেয়ে নেয়। খাওয়া নিয়ে ওর অত ধানাইপানাই নেই। খিদে পেলে হাতের সামনে যে কোনও সবজি ধরিয়ে দিলেই হলো। কাঁচাই খেয়ে নেয়। 


কাঁচা সবজি খাওয়ার অভ্যাস সম্পর্কে বামাপদ বলছেন, কিনতে এসে কোন ক্রেতা সবজি সম্পর্কে খারাপ বললে, খেয়ে দেখাতাম। খেতে ভালোই লাগত। তার থেকেই এই অভ্যাস তৈরি হয়ে গেল। এখন কাঁচা সবজি খেতেই ভালোবাসি। প্রায় ৩০ বছর ধরে এভাবে খাচ্ছি। রান্না খাবারও খাই, তবে কম। রান্নার থেকে কাঁচার স্বাদই বেশি। ‘কাঁচা সবজি খেলে শরীর ভালো থাকে। গত ৩০ বছরে একবারও ডাক্তারের কাছে যেতে হয়নি’- একথাও বলেছেন বামাপদ। তবে গরমকালে সমস্যায় পড়ে যান বামাপদ। কারণ শীতে হরেক রকম সবজি পাওয়া গেলেও গরমকালে শুধু এক সবজি বার বার খেতে তাকে। 

Comment As:

Comment (0)