এবার নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত বাঘ

A+ A- No icon

আমেরিকার নিউইয়র্কের ব্রংস চিড়িয়াখানায় নাদিয়া নামের একটি বাঘে এবার করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেল। চার বছর বয়সী ওই বাঘটির শুকনো কাশি হয়েছে। আশা করা হচ্ছে বাঘটি সেরে উঠবে। ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন সোসাইটির ব্রংস জু এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানিয়েছে। এর আগে বিড়ালের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছিল। এবার প্রথম বাঘের শরীরে ধরা পড়ল সেই ভাইরাস। চিড়িয়াখানায় নাদিয়া ছাড়াও আরও পাঁচটি বাঘ ও সিংহের মধ্যে শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতা দেখা দিয়েছিল বলে জানিয়েছে ইউনাইটেড স্টেটস ডিপার্টমেন্ট অব অ্যাগ্রিকালচার (ইউএসডিএ)। তবে চিড়িয়াখানার অন্য প্রাণীদের মধ্যে এ ধরনের লক্ষণ দেখা যায়নি।


চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানায়, যদিও তাদের রুচি কমে গেছে, চিড়িয়াখানার বিড়াল গোত্রীয় এই প্রাণীরা ভালোই আছে। তারা আগের মতোই উজ্জ্বল, সতর্ক এবং যাঁরা তাদের দেখাশোনা করছেন, তাঁদের ডাকে সাড়া দিচ্ছে। কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, কীভাবে এই বড় বিড়াল গোত্রীয় প্রাণীগুলো আক্রান্ত হলো, বলা যাচ্ছে না। কারণ, বিভিন্ন জাতের প্রাণী নতুন এই সংক্রমণে বিভিন্নভাবে সাড়া দিচ্ছে। আক্রান্ত বাঘকে গভীর পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে এবং দ্রুতই সেরে উঠবে বলে আশা করা হচ্ছে।


তবে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা করছে, সেখানকারই একজন কর্মী ভাইরাসের বাহক ছিলেন। যদিও তাঁর মধ্যে কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। ওই কর্মীই আক্রান্ত বাঘের দেখাশোনা করতেন। ব্রংস জু ১৬ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত যে কাউকে পোষা প্রাণীসহ যেকোনো প্রাণীর সংস্পর্শে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ইউএসডিএ।

Comment As:

Comment (0)