টেলিভিশন নাটকের সঙ্কট কাটাতে নতুন উদ্যোগ

A+ A- No icon

নানা কারনে এখন প্রশ্নবিদ্ধ বোকাবাক্সের নাটক। এজেন্সির দৌরাত্ব সাথে বিজ্ঞাপন বিড়ম্বনা কিংবা অভিনয় শিল্পী নিয়ে অসংগতি এমন নানা অভিযোগে অভিযুক্ত দেশের টেলিভিশন নাটক। যে সঙ্কট কাটাতে উদ্যোগ নিচ্ছে টেলিভিশন নাটকের আন্ত:সংগঠনগুলো। সময়ের পালাক্রেমে হারিয়ে যাওয়া টেলিভিশন নাটকের সুদিন ফিরিয়ে আনতে ফের ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন নির্মাতা, অভিনয়শিল্পী, প্রযোজকসহ সংশ্লিষ্টরা।

 

সম্প্রতি ডিরেক্টরস গিল্ড, টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ, অভিনয় শিল্পী সংঘ, টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের পাশাপাশি টিভি নাটকের আন্ত:সংগঠনগুলো সংকট সমাধানে বৈঠকে বসেন। গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন থেকে টেলিভিশন চ্যানেলে নাটক প্রচারের জন্য লাগবে প্রযোজকের অনাপত্তিপত্র। এছাড়া টেলিভিশনে নিজের কাজ প্রচার করতে নাট্যকার, পরিচালক এবং অভিনেতা প্রত্যেককেই হতে হবে সংগঠনের সদস্য। এসব সিদ্ধান্ত নবাগত নির্মাতা অভিনয়শিল্পী কিংবা কলাকুশলীদের বিড়ম্বনার কারণ হবে কিনা এমন প্রশ্নে তারা জানিয়েছেন, আবেদনের প্রেক্ষিতে দ্রুত সময়ের মধ্যেই দেয়া হবে প্রাথমিক সদস্যপদ।   

 

আসছে নভেম্বর থেকে সিদ্ধান্তগুলো কার্যকরের কথাও জানান সংগঠনগুলোর নেতারা। নিজেদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার মধ্যদিয়ে নাটকের সুদিন ফিরিয়ে আনতে পুনরায় গঠন করা হচ্ছে ফেডারেশন অব টেলিভিশন প্রফেশনালস অর্গানাইজেশন এফটিপিও। যা আত্মপ্রকাশ করেছিলো ২০১৬ সালে। নাট্যকার মাসুম রেজা বলেন, ‘নব্বই দশকেও আমাদের দেশের নাটক বিদেশে প্রশংসা কুড়িয়েছে। কলকাতার সবাই আমাদের নাটক দেখেছে। কিছু অনিয়মের জন্য আমাদের নাটকের মান নেমে গেছে, এখন শৃঙ্খলা আনতে হবে। টিভি নাটকের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে হবে। এর জন্য সবাই এক প্লাটফর্মে দাঁড়িয়েছি।’

Comment As:

Comment (0)