ভারতীয় মন্ত্রীর ছবিতে মোশাররফ করিম

A+ A- No icon

‘ভারত-বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠিত হলো গত ২১ অক্টোবর সন্ধ্যায়, রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারের নবরাত্রি মিলনায়তনে। এই অনুষ্ঠানে এসেছিলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী ব্রাত্য বসু। তিনি একই সঙ্গে নাট্যকার, নাট্য পরিচালক, অভিনেতা ও রাজনীতিবিদ। এই অনুষ্ঠানের ফাঁকে তিনি একটি ছবির পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন ভারতের বাংলা ছবির আবির চট্টোপাধ্যায় আর বাংলাদেশের মোশাররফ করিমের সঙ্গে।

 

ছবির নাম ‘ব্যবধান’। বুদ্ধদেব গুহর ছোট গল্প ‘বাবা হওয়া’ আর ‘স্বামী হওয়া’ নিয়ে ছবির কাহিনি। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে খবরটি নিজেই নিশ্চিত করেছেন বাত্য বসু। ব্রাত্য বসু জানান, সম্প্রতি ঢাকা সফরের সময় মোশাররফ করিম ও আবির চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তিনি আলোচনা করেছেন। তাঁদের সবার সঙ্গে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে। ছবির অন্য শিল্পীদের এখনো চূড়ান্ত করা হয়নি। ছবির শুটিং শুরু করবেন আগামী বছর ফেব্রুয়ারি মাসে। তার আগেই সবকিছু চূড়ান্ত হয়ে যাবে। ‘ব্যবধান’ ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়।

 

মোশাররফ করিম এখন আছেন মালয়েশিয়া। সেখান থেকে তিনি বলেন, ‘মাসখানেক আগে একটি ছবির ব্যাপারে ফোনে ব্রাত্য বসু আমার সঙ্গে আলোচনা করেছেন। এর পর আর কোনো আলোচনা হয়নি। এখনো কিছুই চূড়ান্ত হয়নি।’ ব্রাত্য বসু সর্বশেষ তৈরি করেন ‘তারা’ চলচ্চিত্রটি, ২০১০ সালে। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে তিনি বলেন, ‘প্রায় এক দশক পর আবার পরিচালনা করছি।’ আবির চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, ‘বাংলাদেশ সফরের সময় এই ছবি নিয়ে ব্রাত্য বসুর সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। আমি এখন “অসুর” ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছি।

 

এরপর আবার স্ক্রিপ্ট, সময় আর অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে তাঁর সঙ্গে আলোচনা করব।’ ব্রাত্য বসুর প্রথম ছবি ‘রাস্তা’ (২০০৩)। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। এরপর তিনি তৈরি করেন ‘তিস্তা’ (২০০৫) ও ‘তারা’ (২০১০)। জানালেন, তাঁর আগের সব কটি ছবি ছিল সেলুলয়েডের জন্য। তবে এবার তিনি ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করবেন। বললেন, ‘এটা আমার জন্য একেবারই নতুন মাধ্যম।’

Comment As:

Comment (0)