বাড়তি ওজন নিয়ে মাথা ঘামান না সোনাক্ষী

A+ A- No icon

বলিউডে যে তারকা দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক গঠন নিয়ে বাজে মন্তব্য শুনে আসছেন, তিনি ‘দাবাং’কন্যা সোনাক্ষী সিনহা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁকে নিয়ে ট্রল আর মিম বানানোর বিষয়ে ইঙ্গিত করে বলেন, তিনি ৩০ কেজি ওজন কমানোর পর থেকেও তাঁকে ক্রমাগত ‘মোটা’ বলা হচ্ছে। এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সোনাক্ষী সিনহা বলেছেন, বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তিনিই সবচেয়ে বেশি ‘বডি শেমিং’য়ের শিকার হওয়া অভিনয়শিল্পী।


সোনাক্ষী সিনহা বলেন, ‘বলিউড–যাত্রার পুরোটা সময়ই আমাকে এগুলো শুনে আসতে হয়েছে। আমার কোমরের মাপ যা-ই হোক না কেন, আমি মোটা। এসব কটু মন্তব্য আর নেওয়া যায় না। বলিউডে আসার আগে আমি কঠোর পরিশ্রম করে মেদ ঝরিয়েছি। ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছি। আমি জানি যে আমার পেশায় ফিট আর সুন্দর দেখানো জরুরি।’ এই ‘মিশন মঙ্গল’খ্যাত তারকার ইনস্টাগ্রামের সর্বশেষ তিনটি পোস্ট ‘হেটার’দের উদ্দেশ করা। সেখানে তিনি তাঁদের উদ্দেশে নিজের ছবি পোস্ট করে ‘এখন সময় কেবল সামনে এগোনোর, আরও ভালো মানুষ হওয়ার আর শক্তিশালী হওয়ার’, ‘কোনো কিছুই আমাকে আটকে রাখতে পারবে না’, ‘কোনো কিছু লুকোনোর নেই, কোনো কিছুকে ভয় পাওয়ার নেই, আমাকে কেউ থামাতে পারবে না’, ‘প্রিয় হেটার্স, একটি চুমুর সঙ্গে বলতে চাই, আমি এ রকমই’—এই ক্যাপশনগুলো জুড়ে দিয়েছেন।


কেবল ইনস্টাগ্রামেই নয়, টুইটারেও হেটারদের একহাত নিয়েছেন এই ‘লুটেরা’ অভিনেত্রী। একজন লিখেছেন, ‘আপনি কীভাবে এত কুৎসিত দেখতে হলেন?’ এর উত্তরে নিজের চেহারা আয়নায় দেখতে বলেছেন ৩২ বছর বয়সী এই তারকা। এত কিছুর পরেও কীভাবে ইতিবাচক থাকেন? উত্তরে সোনাক্ষী বলেন, ‘আমি বরাবরই আত্মবিশ্বাসী। আর এসব আজেবাজে কথা আমি সেই স্কুল থেকেই শুনে আসছি। তবে আমি জানতাম, আমি দেখতে কেমন, সেটিই সব নয়। আমি খেলাধুলা, বিতর্ক করতাম। আমি নিজের মেধা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলাম, আছি, থাকব। আর মেধার সঙ্গে শরীরের ওজনের কোনো সম্পর্ক নেই।’ ২০২০ সালে সোনাক্ষী সিনহার ‘ভুজ: দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া’ ছবিটি মুক্তি পাবে।

Comment As:

Comment (0)