লকডাউনে নিরবেই চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ইরফান খান

A+ A- No icon

ভারত জুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে লকডাউন চলছে। থম থমে নিরব পরিবেশে শেষ ঘুম ঘুমালেন বলিউডের নন্দিত অভিনেতা ইরফান খান। মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন ধিরুবাই আম্বানি হাসপাতালে বুধবার সকালে মারা গেছেন এই অভিনেতা। লকডাউনের এমন পরিবেশ না থাকলে ইরফান খানকে শেষবারের মতো দেখতে আসতো লাখ লাখ ভক্ত। কিন্তু সেই সুযোগ হলো না। বুধবার দুপুর ৩টায় নিরবেই ইরফান খানের দাফন হয়েছে ভার্সোভার কবরস্থানে। সেই শুধুমাত্র উপস্থিত ছিলেন তার পরিবার, নিকট আত্মীয় এবং কয়েকজন বন্ধু।


বলিউডের সুপারস্টার ইরফান খানের মৃত্যুতে এখন পুরো ভারত জুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অমিতাভ বচ্চন, ঐশ্বরিয়া, অজয় থেকে শুরু করে সবে তারাকারা শোক জানিয়েছেন ইরফান খানের মৃত্যুতে। ইরফান খানের জন্ম ৭ জানুয়ারি ১৯৬৭ সালে। ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে তিনি তার অতুলনীয় ও অকল্পনীয় সহজাত অভিনয় ক্ষমতার জন্য পরিচিত। বলিউড, ব্রিটিশ ভারতীয়, হলিউড এবং একটি তেলুগু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।


৩৫ বছরের কর্মজীবনে তিনি ৫০টির অধিক দেশীয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও চারটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন ইরফান। ২০১১ সালে ভারত সরকার তাকে ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রীতে ভূষিত করে।

Comment As:

Comment (0)