ছোট চুলের ঠাটবাট

A+ A- No icon

ছোট চুল। শুনলেই যেন চোখে ভেসে ওঠে ঘাড় অবধি ছাঁটা ছোট চুলের ছবি। তবে ছোট চুলের দৈর্ঘ্যটা এখন শুধু ঘাড় পর্যন্তই সীমাবদ্ধ নেই, তার দৈর্ঘ্য বেড়েছে। কাঁধ পর্যন্ত নেমে আসা ছোট চুলে এখন রং আর বাঁধার ঢঙে আসছে নতুনত্ব।


মিউনিস ব্রাইডালের রূপ বিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমীন বলছিলেন, লম্বা বব আদলে কাটা এই ছাঁট মানিয়ে যাবে যেকোনো পোশাকের সঙ্গে। আবার মজার ব্যাপার হলো, এই ছোট্ট চুলেও বাঁধতে পারেন বিনুনি, খোঁপা আর ছোট্ট পনিটেল। সাধারণত হালকা কোঁকড়া চুলে এই কাটটা বেশি মানায়। তবে যাঁদের স্ট্রেইট চুল, চিন্তা নেই তাঁদেরও। এই কাট দেওয়ার পর আপনার চেহারার সঙ্গে মানিয়ে যাবে, এমন হেয়ার কালারে চুলটাকে রাঙিয়ে নিতে পারেন। এতে যেমন বাড়বে চুলের ভলিউম, তেমনি আপনি সেজে উঠবেন নতুন সাজে। পেছনের চুলগুলো নিয়ে উল্টো করে ফ্রেঞ্চ বেণি করে বাকি চুলগুলো দিয়ে এভাবেই বেঁধে নিতে পারেন স্টাইলিশ খোঁপা।


একটু পাফ করে সামনের চুলগুলো টেনে নিন। এবার সেই চুলগুলো দিয়ে বেঁধে নিন উঁচু খোঁপা।প্রথমেই বাঁ দিকের চুলগুলোকে তিন ভাগে ভাগ করে নিন। এবার চিকন করে তিনটি বিনুনি বেঁধে তালু পর্যন্ত নিয়ে ক্লিপ আটকে দিন। ডান দিকের বাকি চুলগুলো দিয়ে ফ্রেঞ্চ বেণি বাঁধুন। মাথার তালু পর্যন্ত এনে বাকি চুলগুলো দিয়ে একটি ছোট খোঁপা বেঁধে নিন। পেছনের চুলগুলো স্ট্রেটনার দিয়ে সোজা করে নিন।


বাঁ দিকে সিঁথি কাটুন। এবার ডান দিকের সামনে থেকে একগাছি চুল নিয়ে এক ইঞ্চি ফাঁকা রেখে রাবার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে নিন। এভাবে পাঁচটি ঝুঁটি হবে। রাতের সাজে শাড়ির সঙ্গে বেশ মানাবে এই হেয়ার স্টাইল। এই কাটের চুলের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো আলাদাভাবে চুলের সাজের দিকে আর মনোযোগ দেওয়ার দরকার নেই। তারপরও একটু নতুনত্ব চায় মন। বাইরে বের হওয়ার সময় যেকোনো একদিকের চুলগুলোকে তিন বা চার ভাগে ভাগ করে এভাবে পেঁচিয়ে নিয়ে কানের পেছনে ক্লিপ আটকে দিন। ঘরে বাইরে যেকোনো সময় এই স্টাইল চুলের সাজে আনবে সতেজতার ছোঁয়া।

Comment As:

Comment (0)