হাজারো রোগ থেকে মুক্তি দেবে কাঁচামরিচ

A+ A- No icon

প্রতিদিনের রান্নায় কাঁচামরিচ ছাড়া তো চিন্তাই করা যায় না। গরম ভাত, আলু সিদ্ধ আর ঘির সঙ্গে যদি কাঁচামরিচ থাকে, তবে তো কথাই নেই। কাঁচামরিচ শুধু যে খাবারের ঝাল করতে তা নয়, এ মরিচে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। তবে কাঁচামরিচ তো খেয়েই যাচ্ছেন। তবে এই মরিচ কি শরীরের কোনো উপকারে আসে, নাকি ক্ষতি করে- ভেবে দেখেছেন কখনও। কাঁচামরিচ কেবল স্বাদ বাড়াবে না হাজারো রোগ থেকে মুক্তি দেবে। এতে রয়েছে বেশ কিছু স্বাস্থ্যকর দিকও। তবে খুব বেশি কাঁচামরিচ খেতে নিষেধ করেছেন চিকিৎসকরা। বিশেষ করে শুকনো মরিচ। এতে খাদ্যনালির প্রাচীর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মাত্রাতিরিক্ত ঝাল খেলে একটা সময়ের পর খাবার আর হজম হতে চায় না। 
 

তবে অধিক পরিমাণে খাওয়া যাবে না। পরিমাণে কম খেতে হবে। চিকিৎসকদের মতে, অনেক অসুখেরও দাওয়াই রয়েছে এই কাঁচামরিচ। কেন পাতে রাখবেন কাঁচামরিচ, আর কীভাবেই বা তা খেলে উপকার পাবেন, জানেন?


আসুন জেনে নিই যেসব রোগ থেকে মুক্তি দেবে কাঁচামরিচ-

 

হজমে ভালো কাজ করে

হজমের সমস্যায় খেতে পারেন কাঁচামরিচ। খুব তেল-মসলার রান্নায় ঝালের পরিমাণ কমিয়ে দিন। হালকা ঝাল হজমে সাহায্য করে।


ভিটামিন 'এ'

কাঁচামরিচে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন 'এ' থাকায় হাড়, দাঁত ও মিউকাস মেমব্রেনকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়া ভিটামিন 'সি'র পরিমাণও মরিচে বেশি থাকে। তাই ত্বক ও মুখে বলিরেখা পড়তে দেয় না।


অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টসমৃদ্ধ

কাঁচামরিচ অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টসমৃদ্ধ, যা শরীরকে জ্বর, সর্দি-কাশি ইত্যাদি থেকে বাঁচায়। রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ে কাঁচামরিচের হাত ধরে।


প্রস্টেট ক্যান্সারে ঝুঁকি কমায়

প্রস্টেট ক্যান্সারে ঝুঁকি কমায় কাঁচামরিচ। এ ছাড়া স্নায়ুরোগ নিরাময়, দীর্ঘমেয়াদি স্নায়ুবিক অসুখের পথ্য হিসেবে কাজে আসে কাঁচামরিচ।


খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়

কাঁচামরিচ শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। মরিচের বীজ এ কাজে খুবই কার্যকর। তাই উচ্চরক্তচাপ ও কোলেস্টেরলে ভুগতে থাকা রোগীদের পাতে মরিচ রাখুন।
 

Comment As:

Comment (0)