কম খরচে ইউনিক ঘর সাজানোর টিপস

A+ A- No icon

ঘর সাজানোর জন্য খরচ খুব বেশি করতে হবে তার প্রয়োজন নেই। স্বল্প খরচেও সুন্দরভাবে ঘর সাজিয়ে তোলা যায়। নীচে স্বল্প খরচে ঘর সাজানোর টিপস রইল।

বসার ঘর ( লিভিং রুম) সাজানোর টিপস:

বসার ঘর অথবা লিভিং রুমে খুব বেশি সাজসরঞ্জাম রাখার প্রয়োজন নেই। বসার ঘরটি যতটা খোলা থাকবে দেখতে ভালো লাগবে। বসার ঘরটিতে বসার জন্য সোফা বা ট্রি- টেবিল রাখতে পারেন। সোফাটি ভালো দেখে নির্বাচন করবেন। বেশি দামের শোফার দরকার নেই। স্বল্প টাকার মধ্যে একটি সোফা ক্রয় করুন। বাজারে এখন বেতের সোফাগুলি নিত্যনতুন ডিজাইনে পাওয়া যায়।

 

বেতের সোফাগুলি বেশ ইউনিক দেখতে লাগে। বসার ঘরটি আরও উজ্জ্বল করে তুলতে সোফার দুই সাইডে কুশন ব্যবহার করতে পারেন। এবং বসার ঘরে অবশ্যই টিভি রাখতে ভুলবেন না। এবার বসার ঘরটি একটু ইউনিক ভাবে সাজান। পুরনো আসবাসপত্র সরিয়ে ফেলুন। দেওয়ালে রঙিন ছবি টানতে পারেন অথবা সবথেকে ভালো উপায় যদি নিজস্ব হাতে আঁকা টানতে পারেন। এছাড়াও ফুলদানিতে রঙিন ফুল রাখুন। এতে ঘরের সৌন্দর্যতা বৃদ্ধি পাবে।

বেড রুম সাজানোর টিপসঃ

বেডরুম একটু খোলামেলা রাখা ভালো। বেডরুমের মাঝখানে একটি বেড রাখুন। আর তার ডানদিকে ছোট একটু টেবিল রাখুন। টেবিলের উপর একটি ল্যাম্প রাখবেন ঘরটি শোভা বাড়বে। বেড রুমে কম আলো রাখবেন। আপনি চাইলে টিভি রাখতে পারেন। বেডটি খুব সুন্দর ভাবে সাজিয়ে রাখবেন। ফুলদানীতে রঙিন ফুল সাজিয়ে রাখতে পারেন। এবং দেওয়ালে কিছু অ্যালবাম অথবা হাতে পেইন্ট করা অ্যালবাম ঝোলাতে পারেন। ঘরের একপাশে একটি আলমারি রাখতে পারেন আপনার প্রয়োজনীয় জিনিস রাখার জন্য। এছড়াও কিছু সামান্য ছোটখাটো আসবাসপত্র। তবে খেয়াল রাখবেন বেশি ঘিঞ্জি করে দেবেন না।

রান্নাঘর সাজানোর টিপসঃ

রান্নাঘরটি যেহেতু মহিলাদের ব্যবহার করার জন্য, তাই তাদের পরামর্শ নিয়ে সাজানো ভালো। রান্নাঘরের একদিকে গ্যাসের তাক করে নিতে পারেন। এখন নিশ্চয়ই খেয়াল করে দেখেছেন তাকের উপরে রান্নাঘরের ছোট ছোট খাটো জিনিস যেমন মসলার পাত্র ইত্যাদির রাখার জন্য ছোট ছোট আলাদা তাক করা থাকে যা দেখতেও ভালো লাগে। আপনার রান্নঘরে অল্প জিনিসের মধ্যে সুন্দরভাবে সাজানোর চেষ্টা করবেন। রান্নাঘরের এক পাশে ফ্রিজ এবং আরেক সাইডে ডাইনিং টেবিল রাখুন। এবং ফ্রিজের উপর

Comment As:

Comment (0)