সর্বশেষ:
বাংলাদেশ ব্যাংকের নামে প্রতারণা করে অর্থ আত্মসাৎ ভোট আরও আছে, রাহুলকে মোদীর ‘উপদেশ’ ২০৩০ সালের মধ্যে ২ কোটি চাকরি দখল করবে রোবট চাপের মুখে কংগ্রেসে সাক্ষ্য দেবেন মুলার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে সমৃদ্ধির পথে হাঁটছে বাংলাদেশ

এবারের বিশ্বকাপ সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং বললেন কোহলি

A+ A- No icon

ঝুলিতে দুটি বিশ্বকাপের অভিজ্ঞতা রয়েছে। এবার ক্রিকেট কেরিয়ারের তৃতীয় বিশ্বকাপের বাইশ গজে নামবেন তিনি। কিন্তু এবার একটু বেশিই সতর্ক বিরাট কোহলি। কারণ ভারত অধিনায়কের মতে, এবারের বিশ্বকাপ সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং। ৩০ মে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে শুরু এবারের বিশ্বকাপ। তার আগে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রী। 


সেখানেই অধিনায়ক জানালেন, এবারের বিশ্বকাপ সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং। কেন? না, কোনও প্রতিপক্ষকে ভয় পেয়ে একথা বলছেন না তিনি। কোহলি সতর্ক এবারের টুর্নামেন্টের ফরম্যাট নিয়ে। আসন্ন বিশ্বকাপে দশটি দল একে অপরের বিরুদ্ধে খেলবে মোট ন’টি ম্যাচ। তালিকার প্রথম চারে থাকা দল পৌঁছে যাবে শেষ চারে। ১৯৯২ বিশ্বকাপে এই ফরম্যাটে হয়েছিল খেলা। কোহলি বলেন, “আমি যে তিনটি বিশ্বকাপ খেলছি তার মধ্যে সবচেয়ে কঠিন এবারেরটা। ফরম্যাট অন্যরকম। প্রত্যেক দলকেই সেটার সম্মুখীন হতে হবে।”


আইপিএল শেষ হওয়ার সপ্তাহ তিনেক পরই ক্রিকেটের মহারণে নামতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের। ৫ জুন সাউদাম্পটনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম লড়াই টিম ইন্ডিয়ার। ক্লান্তি কি দলের পারফরম্যান্সে ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াতে পারে? বিরাট কিন্তু তেমনটা মনে করছেন না। তিনি বলছেন, পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিয়েই শিবিরে যোগ দেবেন তারকারা। এবারের টুর্নামেন্টে ভারতীয় দলের তুরুপের তাস কে? শাস্ত্রী বলছেন, অবশ্যই মহেন্দ্র সিং ধোনি। কারণ দলের হার-জিত অনেকখানি নির্ভর করে থাকবে তাঁর উপস্থিতি ও পারফরম্যান্সের উপরই। কোহলিকে পাশে বসিয়ে শাস্ত্রী বলেই দিলেন, “খেলায় কখন ছোটখাটো বদল আনতে হবে, তা ধোনি দারুণ বোঝে। আইপিএলেও ধোনি ভাল পারফর্ম করেছে। আর বিশ্বকাপের এই ফরম্যাটে ও-ই সেরা। তাই ওর উপর দল অনেকটাই নির্ভর করে থাকবে।”


কোহলিরা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হওয়ার দিনই জানা গেল সমস্ত জল্পনা উড়িয়ে চলতি বছরই হচ্ছে বিসিসিআইয়ের নির্বাচন। বিসিসিআইয়ের অধিনস্ত বেশিরভাগ রাজ্য সংস্থা নির্বাচনে রাজি হওয়ায় সিদ্ধান্ত হয়, আগামী ২২ অক্টোবর হবে এবারের নির্বাচন। সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসনিক কমিটির তরফেও জানানো হয়েছে, সমস্ত রাজ্য সংস্থাকে ১৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচন শেষ করতে হবে। আর ২৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ভারতীয় বোর্ডের কাছে প্রতিনিধিদের একটি তালিকা পৌঁছে দিতে হবে।

Comment As:

Comment (0)