বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের ভাগ্যে কি ঘটতে যাচ্ছে?

A+ A- No icon

ব্রিস্টলে দুদিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় (বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টা)। তার আধাঘণ্টা আগে টস হওয়ার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ে কয়েন ছোঁড়া সম্ভব হয়নি। প্রায় তিন ঘণ্টা অতিবাহিত হতে চললেও টসই করা যায়নি। বাংলাদেশ সময় ৩.৩০ মিনিটে মাঠ পর্যবেক্ষণের কথা ছিল আম্পায়ারদের। নতুন করে বৃষ্টি ফেরায় সেটিও সম্ভব হয়নি। পরের মাঠ পর্যবেক্ষণ সোয়া ৬টায়। এ অবস্থায় ম্যাচ হবে কিনা সেটি নিয়েই শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ম্যাচ হলে কখন, আবার না হলেই-বা কখন জানা যাবে কি পরিণতি অপেক্ষা করছে ম্যাচের ভাগ্যে সেটিতে চোখ এখন সবার।


আইসিসি নিয়মের ৩.৮ ও ৩.৯ ধারায় খেলা বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে গেলে কি করণীয় সে কথা বলা আছে। সেখানে সময়ের বাধ্যবাধকতার কথাও স্পষ্ট করা আছে। টি-টুয়েন্টিতে প্রতি ইনিংসের জন্য ১০০ মিনিট নির্ধারিত। আর ওয়ানডে ম্যাচে এক ইনিংসের জন্য সেই সময়টা দেড়ঘণ্টা। পুরো একটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচের জন্য চার ঘণ্টা, আর ওয়ানডে ম্যাচের জন্য আট ঘণ্টা নির্ধারিত। আইসিসি নিয়মের ১২.৪.২ উপ-ধারায় বলা আছে, শুরুর আগে থেকেই বৃষ্টি বা অন্যকোনো কারণে ম্যাচ বন্ধ থাকলে, সেই ম্যাচের ফলাফল নির্ধারণে জন্য টি-টুয়েন্টিতে অন্তত উভয় ইনিংসে পাঁচ ওভার এবং ওয়ানডে ম্যাচে উভয় ইনিংসে ২০ ওভার করে খেলা হতে হবে।


এখন পর্যন্ত তিনটি করে ম্যাচ খেলে ফেলেছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। তাতে এক জয়ের সঙ্গে দুই ম্যাচে জিততে পারেনি টাইগাররা। আর তিন ম্যাচের মধ্যে একটি করে হার-জিত ও পয়েন্ট ভাগাভাগি লঙ্কানদের। তিন ম্যাচে বাংলাদেশের পয়েন্ট দুই, আর এক জয়ের সঙ্গে পরিত্যক্ত ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট পাওয়ায় শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট তিন।

Comment As:

Comment (0)