ওপেনিংয়ে পঞ্চাশ, ভালো শুরু বাংলাদেশের

A+ A- No icon

টিভি ভাষ্যকাররা বারবার বলছেন, ভারত খুব ভালো একটা টস জিতেছে। টস জিতে ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা বোলিংই নিতে একটুও দেরি করেননি। তবে কি উইকেটে বোলারদের জন্য বিশেষ কোনো সহায়তা আছে? বাংলাদেশের দুই ওপেনার লিটন দাস আর নাঈম শেখের ব্যাটিং দেখে অবশ্য তেমনটি ভাবার কোনো কারণ নেই। বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই খেলছেন এই দুজন। পঞ্চাশোর্ধ্ব জুটি গড়ে ভারতকে বেশ চাপেই রেখেছেন তাঁরা। এই প্রতিবেদন লেখার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০ ওভারে ১ উইকেটে ৭৯ রান। একটি তথ্য দিয়ে রাখা যেতে পারে, এক বছর পর কোনো আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ওপেনিংয়ে পঞ্চাশ রানের একটা জুটি পেল বাংলাদেশ। টি–টোয়েন্টিতে ভারতের বিপক্ষে প্রথম পঞ্চাশের ওপেনিং জুটিও এটি।


নিজেকে শাপ-শাপান্ত করতেই পারেন লিটন দাস। ১৭ রানে ঋষভ পন্তের কল্যাণে স্টাম্পিংয়ের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন। যুজবেন্দ্র চাহালের বলে বেরিয়ে এসে খেলতে গিয়ে মিস করেছিলেন। নিশ্চিত স্টাম্পিং বলেই পন্ত ভুলটা করে বসলেন। স্টাম্পের একটু আগে থেকেই বলটা গ্লাভসে নিয়ে নিলেন। টিভি আম্পায়ার সেটিতে আউট দেওয়ার কোনো কারণ অনুভব করেননি। বেশ কয়েকবার রিপ্লে দেখে পন্তের ভুলটা ধরা পড়ে আম্পায়ারের চোখে। এর অল্প পরেই লিটনের পুল আকাশে উঠলে সেটি ধরতে পারেননি রোহিত। তবে দুটি সুযোগ পেয়েও লিটন যেন উইকেটে থাকতেই চাইলেন না। অনর্থক রান নিতে গিয়ে রান আউট হয়েছেন। ২১ বলে ২৯ রান করে ফিরেছেন তিনি। মেরেছেন ৪টি বাউন্ডারি।


লিটনের সঙ্গী নাঈম ভালোই খেলছিলেন। এই প্রতিবেদন লেখার সময় তিনি ৩০ বলে ৩৬ রান করে ফিরেছেন। ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে শ্রেয়াশ আয়ারকে মিড উইকেটে ক্যাচ দিয়েছেন তিনি। পেসার খলিল আহমেদের প্রথম ওভারের প্রথম তিন বলে পরপর তিনটি চার মেরে রোহিতের কপালে ভাঁজ তিনিই প্রথম ফেলেন। উইকেটের দুই দিকেই খেলা নাঈমের শটগুলি ছিল দৃষ্টিনন্দন। লিটনের বিদায়ের পর উইকেটে এসেছেন সৌম্য সরকার।

Comment As:

Comment (0)