মাঠে সতীর্থকে পিটিয়ে নিষিদ্ধ হলেন শাহাদাত

A+ A- No icon

লর্ডসের অনার্স বোর্ডে তার নাম ভাসছে জ্বলজ্বল করে কিন্তু, শাহাদাত হোসেন রাজিব ডুবছেন অনৈতিক কাজের ভিড়ে। একের পর এক বিতর্কিত কাণ্ডে জড়াচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই ফাস্ট বোলার। বছর কয়েক আগে গৃহকর্মীর গায়ে হাত তুলে যেতে হয় জেলে। বেশ কয়েক মাস জেলে থাকার পর শেষ পর্যন্ত সাড়ে ১২ লাখ টাকার বিনিময়ে গৃহকর্মী পেটানোর সেই মামলা থেকে খালাস পান রাজিব।


তবু থেমে ছিলেন না ৩৩ বছর বয়সী এই বোলার। উল্টোপথে গাড়ি চালানোর দায়ে ট্রাফিক পুলিশের কাছেও হেনস্থা হবার খবরও ভেসে বেড়িয়েছিল কদিন। এতদিন মাঠের বাইরে অপকর্মে জড়িত থাকলেও এবার মাঠেই পেটালেন সতীর্থকে। জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) ঢাকা বিভাগ ও খুলনা বিভাগের ম্যাচ চলাকালীন সতীর্থ মোহাম্মদ আরাফাত সানি জুনিয়রের গায়ে হাত তুলেন তিনি।


জানা যায়, শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে বলের এক পিঠ ঘঁষে দেয়ার জন্য আরাফাতকে বলেন রাজিব। ২৪ বছর বয়সী এই স্পিনিং অলরাউন্ডার সেটা ঠিকঠাক করতে পারবেন না বলাতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তিনি। এরপরই চড় থাপ্পড় দিতে থাকেন আরাফাতকে। সূত্র অনুযায়ী, ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ ঘটনাটি স্বীকার করেছেন। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে জানানো হয়েছে।

Comment As:

Comment (0)