ভালোবাসার ভোরগুলোর দিকে

A+ A- No icon

সপ্ত আকাশ ভেদ করে আমি সেদিন ছুটে গিয়েছিলাম
তোমার কাছে।  কত হাজার ফুট উচ্চতা ছিল আকাশের
সেদিন; মনে করতে পারি না আর আজ।সুরমা'র সুজলা
কিনারে দাঁড়িয়ে কেবলই এঁকেছিলাম তোমার মুখ-
কিংবা বলতে পারো তোমাকে প্রথম স্পর্শের কল্পচিত্রগুলো।


রজনীগন্ধা'র সৌরভ জড়ানো সন্ধ্যাছায়ারা কেমন ছিল সেদিন!
রজনী নেমে আসার আগেই কেমন উষ্ণ ছিল সেই
শীতের শিশির! ভাবতেই চমকে উঠি আজও- অথবা
তোমার খাতায় জমানো লাল গোলাপের পাপড়িগুচ্ছের রঙ;
আমাকে আজও টানে এক ঘোরনেশায়-ভালোবাসায়-ভালোলাগায়।


তারপর... তারপর...
'শ্যামলী সেন্টারে' তোমার আঙুলগুলো আমার হাতে তুলে
নিতে নিতে... মনে পড়ে!


ছাব্বিশ বছর পেরিয়ে এসেছি আমরা। সিকি শতাব্দীর
বেশী সময়ে জমে থাকা ভালোবাসার ভোরগুলো
তোমার দিকে ছড়িয়ে দিতে দিতে কেবলই তাকিয়েছি,
স্ট্যাচু অব লিবার্টি, আইফেল টাওয়ার কিংবা
লন্ডনের বিগ বেন ক্লকের চূড়ার দিকে
জীবন যেখানে যাপিত মন্থন আর মৌনতায় জাগে।


আরও অনেক পথ পেরিয়ে যেতে চাই। আরও অনেক
পরাগ আর পারদের গায়ে জমা হতে হতে
জমিয়ে রাখতে চাই তোমাকেও,পাঁজরে-প্রত্যয়ে-প্রভায়।


আমাদের পৃথিবী জাগুক।আমাদের প্রেম, পাখির
ডানায় ডানায় ছড়িয়ে পড়ুক মানুষে মানুষে-
যে মানুষকে নিরন্তর এঁকেছি আমাদের কবিতায়
আমাদের ভাষায়,আমাদের বর্ণে।


শব্দগুলো একান্ত আমাদেরই থাকুক।
এই ভাষাগৌরবের মাসে,
প্রতিটি উনিশ ফেব্রুয়ারি'র সূর্য বরাদ্দ থাকুক
শুধুই আমাদের জন্য।আলোকিত হাওয়ায় হওয়ায়।

Comment As:

Comment (0)