বেসিস সদস্যদের আর্থিক সহযোগিতা করবে আইপিডিসি, বললেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

A+ A- No icon

সম্প্রতি বেসিসের সদস্য ও অংশীজনদের নিয়ে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। শনিবার বিকালে রাজধানীর রাওয়া কনভেশন সেন্টারে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সৌজন্যে এ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘পবিত্র মাহে রমজানে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে যারা অনবদ্য অবদান রেখে চলেছেন তাদের সঙ্গে ইফতার করার আনন্দটাই অন্যরকম। বেসিস তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন, বেসিসের সকল সদস্যই নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের হয়ে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে চলেছেন।’ এসময় তিনি বেসিস সদস্যদের আগাম ঈদের শুভেচ্ছাও জানান।

 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আইসিটি এখন দেশের শিল্প খাতগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি আর্থিক খাত। মাত্র ১০ বছরে এই খাতের রপ্তানি আয় এখন ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমান। এ খাতের প্রসারে বেসিসের ভূমিকা অনস্বীকার্য। এ খাতের প্রসারে আমাদের তরফ থেকে যা যা সাহায্য দরকার আমরা করবো।’

 

অনুষ্ঠানে সদস্যদের আর্থিক সহযোগিতা প্রদানে বেসিসের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। উক্ত সমঝোতা স্মারকের আওতায় বেসিসের নারী নেতৃত্বাধীন সদস্য প্রতিষ্ঠানসমূহ আইপিডিসির ‘জয়ী’র আওতাধীন আর্থিক সহযোগিতা পাবেন। পাশাপাশি, আইপিডিসির নতুন আর্থিক সাপ্লাই চেইন ‘অর্জন’-এর মাধ্যমে ক্ষুদ্র, মাঝারি ও করপোরেট প্রতিষ্ঠানসমূহ আর্থিক সহযোগিতা পাবে।

 

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পর বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘সদস্যদের কল্যাণে বেসিস সর্বদাই বদ্ধপরিকর। আইপিডিসির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের মাধ্যমে আশা করি বেসিস-এর সদস্য প্রতিষ্ঠানসমূহ ব্যবসা সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে আর্থিক সহযোগিতা পাবেন।’

 

এ বিষয়ে আইপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আইপিডিসি যৌথ প্রয়াসে এগিয়ে যাওয়ায় বিশ্বাস করে। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশীদার বেসিসের সঙ্গে যৌথভাবে বেসিস সদস্যদের আর্থিক সহায়তা প্রদানে আমাদের এ সমঝোতা স্মারক অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

Comment As:

Comment (0)