বাসায় ওষুধ পৌঁছে যাবে মাত্র ৫৯ মিনিটে!

A+ A- No icon

মাত্র ৫৯ মিনিটে আপনার প্রয়োজনীয় ওষুধটি পৌঁছে যাবে বাসায়। আর এই কাজের দায়িত্ব নিচ্ছে অনলাইনে ওষুধ ডেলিভারি সেবা ‘গোমেডকিট’। রাজধানীর বাংলামোটরের ওয়াটার ফল কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘গোমেডকিট’ মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।


অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম, বেসিসের পরিচালক দিদারুল আলম সানী, ডিসিসিআইয়ের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ ইবনে নূর, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ই-ক্যাব) সভাপতি শমী কায়সার এবং উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্সের সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।


তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ১০ বছর আগেও দেশের স্বাস্থ্যসেবার যে অবস্থা ছিল তার আমূল পরিবর্তন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই ১০ বছরে স্বাস্থ্য খাতের যে উন্নতি হয়েছে তা আগের ৩০ বছরেও কোনো সরকার করতে পারেনি। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে গ্রামীণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছেছে এখন স্বাস্থ্যসেবা। আর এখন তো টেলি মেডিসিনের সময়।


গোমেডকিট এর প্রশংসা করে পলক আরও বলেন, এ ধরনের উদ্যোগ স্বাস্থ্য খাতে আমূল পরিবর্তন আনবে। শিক্ষার সাথে ইন্টারনেটকে জুড়ে দিলে দারুণ কিছু হয়। যার বাস্তব উদাহরণ গোমেডকিট। এবারের বাজেটে প্রধানমন্ত্রী স্টার্টআপদের জন্য ১০০ কোটি টাকা বাজেট রেখেছে। এমন দেশীয় স্টার্টআপ যেন গ্লোবাল প্ল্যাটফর্মে পরিচিতি পেতে পারে তার জন্য আমাদের তরফ থেকে সার্বিক সহায়তা থাকবে। সফটওয়্যার এবং আর্থিক সহায়তা থাকবে।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম 'গোমেডকিট'-এর উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন,  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সোহানুর রাহমান ও সৌরভ আজমের এই উদ্যোগ ব্যস্ততম শহর ঢাকায় অনেকের উপকারে আসবে। জরুরি প্রয়োজন মেটাতে সব খাতেই এমন সেবা চালু করা প্রয়োজন। তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এভাবেই একের পর এক উদ্ভাবনীতে দেশ এগিয়ে যাবে।


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর সভাপতি শমী কায়সার বলেন, আইসিটি ইকো সিস্টেমের মধ্যে সার্ভিস ডেলিভারি একটা বড় জায়গা। সেখানে গোমেডকিট একটা বড় ভূমিকা রাখবে বলে আমাদের আশাবাদ। একই সাথে, আমাদের দেশে বিভিন্ন ধরনের রোগ নিয়ে এখন পর্যন্ত সেন্ট্রাল কোনো ডাটাবেজ নেই। এই প্ল্যাটফর্মটি তেমন একটি তথ্য ভাণ্ডার হিসেবেও আমাদের সেবা দেবে।


অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে আরও বক্তব্য রাখেন বেসিস এর পরিচালক দিদারুল আলম সানী, উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্সের সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।
প্রসঙ্গত, বর্তমানে শুধু ঢাকা শহরে ২৪ ঘণ্টা কার্যক্রম পরিচালনা করছে গোমেডকিট। পরবর্তীতে এটিকে সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানান উদ্যোক্তা সোহান ও সৌরভ। তারার জানান, বাজারে প্রেসক্রিপশনবিহীন ওষুধ বিক্রি করা হচ্ছে। যার সবচাইতে বাজে প্রভাব পড়ছে মাত্রাতিরিক্ত এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করায়। 'গোমেডকিট' অ্যাপ ব্যবহারে আমরা উৎসাহিত করছি এ বিষয়টি মাথায় রেখে। এছাড়া ব্যস্ততম শহরে অনেক সময় আপনার বাবা-মা বা নিকটজনের জন্য ওষুধ বাসায় নিয়ে আসতে ভুলে যেতে পারেন। অথবা আপনার জন্যও প্রয়োজন হতে পারে জরুরি ওষুধ। এই সকল প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখে আমরা তৈরি করেছি 'গোমেডকিট' অ্যাপ। ডাউনলোড : https://bit.ly/2mffdC1 ঠিকানায়।

Comment As:

Comment (0)