আবার ঢাকা থেকে সরাসরি দিল্লি যাবে বিমান

A+ A- No icon

সাড়ে চার বছর বন্ধ থাকার পর আবার দিল্লি ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। আগামী ১৩ মে থেকে ঢাকা-দিল্লি-ঢাকা ফ্লাইট শুরু করবে বিমান। এ ছাড়া আগামী জুনে চীনের গুয়াংজুতে ফ্লাইট পরিচালনা শুরুর উদ্যোগ নিয়েছে বিমান। দিল্লি ফ্লাইটের বিষয়ে মঙ্গলবার বিমানের নির্বাহী পরিচালকদের সভায় সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। বিমানের মুখপাত্র, মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ প্রথম আলোকে বলেন, প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে তিন দিন যথাক্রমে সোম, বৃহস্পতি ও শনিবার ফ্লাইট চালানো হবে। ১৬২ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ দিয়ে ঢাকা থেকে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।


ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বেলা তিনটায় ফ্লাইটটি ছেড়ে যাবে। দিল্লিতে ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সেখানকার সময় বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে পৌঁছাবে। আবার দিল্লির স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে ফিরতি ফ্লাইটটি ছাড়বে, ঢাকায় অবতরণ করবে রাত ৯টা ২০ মিনিটে। বিগত শতাব্দীর আশির দশক থেকে বিমানের দিল্লি ফ্লাইট ছিল। লোকসানের কথা বলে ২০১৪ সালের ২৩ আগস্ট এই গন্তব্যটি বন্ধ করে বিমান। এরপর ভারতের জেট এয়ারওয়েজ অনেকটা একচেটিয়া ঢাকা-দিল্লি ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছিল। সম্প্রতি জেট এয়ারওয়েজ বন্ধ হয়ে যায়। বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রচেষ্টায় বিমান আবার দিল্লি ফ্লাইট চালুর উদ্যোগ নেয়। এখন আর কোনো বিমান সংস্থা ঢাকা-দিল্লি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করছে না।


বিমান সূত্র জানায়, দিল্লি ফ্লাইটের উদ্বোধন উপলক্ষে টিকিটের ওপর ১৫ শতাংশ উদ্বোধনী ছাড় ঘোষণা করছে বিমান। আগামী ৩০ মের মধ্যে যাঁরা টিকিট কিনবেন, তাঁরা এই ছাড় পাবেন। এ ছাড়া ঢাকা-দিল্লি গন্তব্যে ফিরতি টিকিট এক মাস মেয়াদে ইকোনমি ক্লাসের ক্ষেত্রে কর ছাড়া সর্বনিম্ন ৩০০ মার্কিন ডলার এবং এক বছর মেয়াদি টিকিটের ক্ষেত্রে কর ছাড়া সর্বনিম্ন ৩২০ ডলার ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। বিমান প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী আজ প্রথম আলোকে বলেন, দিল্লি ফ্লাইটের পর চীনের গুয়াংজু গন্তব্যে ফ্লাইট শুরু করা হবে। তিনি বলেন, ‘আমি আসার পর শুনেছি, টিকিট পাওয়া যায় না, আবার বিমানে উঠলে দেখা যায় অর্ধেক সিট খালি। পররাষ্ট্রমন্ত্রীও কিছুদিন আগে একটা ডিও লেটারও দিয়েছেন, বিমানের সিট অর্ধেক খালি।’


মাহবুব আলী বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে অংশীজনের সঙ্গে কথা বলেছি। টিকিট ব্লক করাসহ কিছু বিষয় বের করেছি। সেসব দূর করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন আর সিট খালি যাচ্ছে না। প্রতিদিন আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের আপডেট নিচ্ছি। ৯০ শতাংশের ওপরে আসন পূর্ণ থাকে।’

Comment As:

Comment (0)