আমিরাতে শুরু হলো প্রবাসীদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির কাজ

A+ A- No icon

সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি এবং স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আবুধাবিতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইসির একটি টিম আরব আমিরাতের বাংলাদেশ দূতাবাসে অবস্থান করে এ কার্যক্রম চালাবে। পাশাপাশি অনলাইনেও আবেদন নেওয়া হবে।


এর আগে ৫ নভেম্বর অনলাইনে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীদের ভোটার করে নেওয়ার কার্যক্রম শুরু করে নির্বাচন কমিশন। এরই ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাতে এ কার্যক্রম শুরু হলো। পরবর্তীতে সৌদি আরব, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাজ্যসহ অন্যান্য দেশে অবস্থিত বাংলাদেশি নাগরিকরা এ সুযোগ পাবেন। এনআইডি অনুবিভাগের কর্মকর্তারা বলেন, প্রবাসীরা আবেদন করার পর সেটা তার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হবে। সেখান থেকে তদন্ত প্রতিবেদন এলে, যোগ্য ব্যক্তির দশ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের আইরিশ নেওয়ার জন্য দূতাবাসে হেল্প ডেস্ক বসানো হবে। এরপর সেটা ইসি সার্ভারে নিয়ে স্মার্টকার্ড ছাপিয়ে হেল্প ডেস্কের মাধ্যমেই আবার বিতরণ করা হবে।


তারা আরও বলেন, মোট ছয়টি ডকুমেন্ট দিতে হবে প্রবাসীদের ভোটার হওয়ার জন্য। এগুলো হলো- পাসপোর্টের ফটোকপি, বিদেশি পাসপোর্টধারী হলে দ্বৈত নাগরিকত্ব সনদের ফটোকপি বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতিপত্র, বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে শনাক্তকারী একজন প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকের পাসপোর্টের কপি, বাংলাদেশে বসবাসকারী রক্তের সম্পর্কের কোনও আত্মীয়ের নাম, মোবাইল নম্বর ও এনআইডি নম্বরসহ অঙ্গীকারনামা, বাংলাদেশে কোথাও ভোটার হয়নি মর্মে লিখিত অঙ্গীকারনামা ও সংশ্লিষ্ট দূতাবাসের প্রত্যয়নপত্র। অনুষ্ঠানে আবুধাবিতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান এবং জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

Comment As:

Comment (0)