বিদেশে পাসপোর্ট হারালে করণীয়

A+ A- No icon

অনেকেই দেশের বাইরে ঘুরতে যেতে পছন্দ করেন। এই দেশের বাইরে ঘুরতে গেলে মনে অনেক আনন্দ ও উৎসাহ কাজ করে। এই আনন্দ ও উৎসাহের মাঝে ডুবে গিয়ে আমরা যখন সব উপভোগ করতে থাকি তখনই ঘটে যেতে পারে নানান দুর্ঘটনা।দেশের বাইরে ঘুরতে গেলে আপনার কাছে সবচেয়ে এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বস্তুটি হলো আপনার পাসপোর্ট তারপরে হলো টাকা। এখন কোনো দুর্ঘটনাবশত যদি আপনার পাসপোর্টটি যদি হারিয়ে যায় তাহলে মনে হবে আপনি পৃথিবীর সবচেয়ে অসহায় মানুষ। আপনার তখন মানসিক অবস্থা এতটাই খারাপ হবে যা আপনি কল্পনা করতে পারবেন না। তখন এই বিদেশ ভ্রমণ আপনার কাছে বিষ ভ্রমণ লাগবে।

 

পাসপোর্ট হারালে করণীয়ঃ নানান কারণে বা দুর্ঘটনায় আপনার মহামূল্যবান পাসপোর্টটি হারিয়ে যেতে পারে কারণ বিপদ বলে কয়ে আসে না। সর্বপ্রথম যে কাজটি করবেন আপনি যেদিন আপনার পাসপোর্টটি হাতে পাবেন সেদিনই আপনার পাসপোর্টের অনেকগুলো ফটোকপি এবং স্ক্যান করে আপনার গুগুল ড্রাইভ কিংবা মোবাইলে সেভ করে রাখুন। তারপরে আপনি যেদেশের ভিসা পাবেন ভিসা পাওয়ার সাথে সাথে ভিসারও কয়েককপি ফটোকপি করে রাখুন এবং অবশ্যই গুগুল ড্রাইভে বা ফেইসবুকে আপলোড করে রাখুন প্রাইভেসি দিয়ে। এরপরে আপনি যে দেশে যাবেন সেখানে এরাইভাল হওয়ার সাথে সাথে আবারও ওই এরাইভাল হওয়ার সীলগুলো আপনাকে অবশ্যই ফটোকপি করে রাখতে হবে, পারলে নিজের মোবাইলে ছবি তুলে নিন।

 

আপনার যদি কোনো কারণে পাসপোর্ট হারিয়ে যায় তাহলে আপনার সর্বপ্রথম কাজটি হলো বাংলাদেশের দূতাবাস খুঁজে বের করা। বাংলাদেশের দূতাবাস খুঁজে বের করে সরাসরি চলে যান ওখানে। তারাই আপনাকে যাবতীয় সাহায্য করবে। তারা আপনাকে প্রথমে বলবে যেখানে আপনার পাসপোর্টটি হারিয়ে গিয়েছে ওই স্থানের আওতাধীন থানায় রিপোর্ট করে একটি জিডি করতে। আপনি সরাসরি থানায় গিয়ে সাধারণ ডায়রী/জিডি করে ফেলুন। তারপরে আপনি বাংলাদেশের দূতাবাসে গিয়ে ওখানে আপনার যাবতীয় কাগজপত্র যেমনঃ 


.হারানো পাসপোর্টের ফটোকপি,


.হারানো পাসপোর্টের ভিসা এরাইভাল হওয়ার কপি,


.কয়েক কপি ছবি,


.জিডি কপি,


৫.C Form/সি ফর্ম (C Form এর মানে আপনি যদি ইন্ডিয়াতে থাকেন তাহলে আপনি ইন্ডিয়ার কোথায় আছে বা কোন হোটেলে আছেন তার একটি প্রমাণপত্র যা অতি দরকারী ও আবশ্যিক )


.সাথে একটি দরখাস্ত লিখবেন পাসপোর্ট হারিয়ে গেছে এই মর্মে ট্রাভেল পারমিট ইস্যু করার জন্য আবেদন মিনিস্টার কাউন্সিলর বরাবরে। অতঃপর তারা আপনার কাছে এক বা দুইদিন সময় নিবে যদি আপনার কপাল ভালো থাকে তাহলে আপনি সেদিনই আপনাকে আপনার ট্রাভেল পারমিট দিয়ে দিবে। ট্রাভেল পারমিট-টি আপনার পাসপোর্টের মতো কাজ করবে আর ট্রাভেল পারমিটে একটা সিরিয়াল নম্বর দেয়া থাকে এই সিরিয়াল নাম্বারটিই আপনার খন্ডকালীন পাসপোর্ট নাম্বার হিসাবে ব্যবহার হয়ে থাকে।আপনি যদি ইন্ডিয়াতে পাসপোর্ট হারিয়ে ফেলেন তাহলে আপনি বাংলাদেশ দূতাবাস হতে প্রাপ্ত ট্রাভেল পারমিট ও ট্রাভেল ইন্সুরেন্স নিয়ে ইন্ডিয়ার অবস্থিত Foreign Regional Registration Office (FRRO) – এ গিয়ে এক্সিট পারমিট নিতে হবে।এক্সিট পারমিটের জন্য আপনাকে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদন করতে হলে আপনাকে আপনার


১. হারানো পাসপোর্টের ফটোকপি,
২. হারানো পাসপোর্টের ভিসা ও এরাইভাল হওয়ার কপি,
. কয়েক কপি ছবি,
৪. জিডি কপি,
৫. C Form/সি ফর্ম লাগবে।


যদি আপনি C Form ছাড়া আবেদন করতে যান তাহলে আপনাকে ফেরত আসতে হবে। তাই মনে রাখবেন আপনাকে অবশ্যই C Form নিতে হবে আপনি যে হোটেলে থাকেন সে হোটেল থেকে। সব কাগজ দিয়ে অনলাইনে আবেদন করে ফেলুন। করে FRRO অফিসের এর ভিতরে গিয়ে আপনার সমস্যা গুলো খুলে বলুন। আশা করি একদিন বা দুইদিনের মধ্যেই আপনি এক্সিট পারমিট নিয়ে দেশে চলে আসতে পারবেন।আরেকটি কথা কোনোরূপ ভেঙ্গে পড়বেন না এবং প্যানিক নিবেন না। পাসপোর্ট হারানো গেলে ঠান্ডা মাথায় ওপরে লেখা করণীয় কাজ গুলো একটার পর একটা সেরে নিশ্চিন্তে দেশে চলে আসুন

Comment As:

Comment (0)