মালিন্দো এয়ার বন্ধ করল সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট

A+ A- No icon

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে বুধবার (১৮ মার্চ) থেকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে মালিন্দো এয়ার। মালয়েশিয়াকে ‘লক-ডাউন’ ঘোষণার পর বিমান সংস্থাটি এ ঘোষণা দিল। এক বিবৃতিতে মালিন্দো এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষ জানায়, দেশব্যাপী জনগণের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে মালয়েশিয়া সরকারের ঘোষণার পর সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে নাগরিকদের দেশ ছাড়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মালয়েশিয়া সরকার। সেই সঙ্গে বিদেশি দর্শনার্থী ও নাগরিকদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বুধবার থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে।


মালিন্দো এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষ জানায়, ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকলেও, এ সময়ের মধ্যে কুয়ালালামপুর-কোটা কিনাবলু, কুয়ালালামপুর-কুচিং, কুয়ালালামপুর-পেনাং, কুয়ালালামপুর-লংকাওয়া রুটে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনা অব্যাহত রাখবে। মালিন্দো এয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ক্যাপ্টেন মুশাফিজ বিন মুস্তাফা বলেন, যদিও আমরা জরুরি সেবাদাতা সংস্থা, তারপরও করোনা পরিস্থিতিতে সরকারকে সাহায্য করতে চাই। এ কারণে বিমান চলাচল বন্ধ রাখা ছাড়া আমাদের কোনো উপায় ছিল না। তবে ১৮ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত যেসব যাত্রী মালিন্দো এয়ারের টিকিট কেটে ফেলেছিলেন, আগামী ১২ মাসের মধ্যে তাদেরকে সেই টিকিটেই চলাফেরার সুযোগ দেয়া হবে।


করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ‘লক-ডাউন’ ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়া সরকার। জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন মালয়েশিয়াকে ‘লক-ডাউন’ ঘোষণা করেন। দেশটিতে হঠাৎ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারণে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। মালয়েশিয়ায় ১৩৮ জনসহ ৬৭৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। আর এতে মৃত্যু হয়েছে দুজনের। এদিকে দেশটির বিমানবন্দরে  ফ্লাইট অপারেশন বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সে কারণে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর রুটে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সও।


বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও সিইও মোকাব্বির হোসেন সাংবাদিকদের এই তথ্য জানিয়েছেন। করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে বুধবার (১৮ মার্চ) থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে।

Comment As:

Comment (0)